Main Menu

ফ্রান্সে মহানবীর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশে মাওলানা আনছার আহমদ সিদ্দিকী’র তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ

ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় মদদে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর ব্যাঙ্গ চিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদ ও তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করেছেন ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত স্বাধীনতা স্বপক্ষের ওলামা মাশায়েখদের নিয়ে গঠিত’ বাংলাদেশ জাতীয় সুন্নী ওলামা মাশায়েখ পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ হাকীম মাওলানা আনছার আহমদ সিদ্দিকী।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)কে অপমান করা মানে উগ্রবাদীদের উস্কে দেয়া। এতে করে সমাজে হিংসা ও বিদ্বেষ ছড়িয়ে পড়বে। মুসলমানরা এক সময় সারাবিশ^ শাসন করেছেন। তখন পৃথিবীতে হিন্দু, বৌদ্ধ, ঈহুদী, খৃস্টান সহ সকল ধর্মের মানুষ শান্তিতে বসবাস করেছেন। প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি। কোন মুসলিম শাসক কোন ধর্মের দেবতাকে নিয়ে কটুক্তি বা ব্যাঙ্গচিত্র করেননি।

সমগ্র বিশ্বের সার্বজনীন শ্রেষ্ঠ মহামানব ও বিশ্বনবী সাঃ’র ‘ব্যঙ্গচিত্রকে’ রাষ্ট্রীয় পৃষ্টপোষকতায় প্রদর্শন করে ইতিহাসে; ইসলাম ও অন্যধর্মের নবী বিদ্বেষের নতুন ‘কুদৃষ্টান্ত’ উপস্থাপন করেছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রো। তিনি ইচ্ছা করেই বিশ্বজুড়ে কোটি কোটি মুসলমানের অনুভূতিতে আঘাত করছেন। বিশ্বের বিজ্ঞ ও জ্ঞানী লোকদের এখন দায়িত্ব হচ্ছে এ ধরনের ন্যাক্কারজনক কাজের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো। মুক্ত চিন্তা ও বাক স্বাধীনতার নামে কুসংস্কার ছড়িয়ে দেয়া এবং উগ্রবাদীদের উষ্কে দেয়া হচ্ছে। এসবের বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রতিরোধ গড়ে তোলা আহবান জানান হাকীম মাওলানা আনছার আহমদ সিদ্দিকী। জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম লিখেছেন–

“রাসূলের অপমানে যদি না কাঁদে তোর মন,
মুসলিম নয় মুনাফিক তুই, রাসূলের দুশমন”।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *