Main Menu

সিলেট জেলা ও মহানগর শ্রমিক দলের বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ

সিলেটের বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে পুলিশের নির্যাতনে নির্মম ভাবে নিহত রায়াহন আহমদ, এমসি কলেজ সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ধর্ষণ, খুন-গুম ও দ্রব্যমূল্যে উর্ধ্ব গতির প্রতিবাদে জাতীয়তাবাদ শ্রমিক দল সিলেট জেলা ও মহানগর শাখা উদ্যোগে ১৮ অক্টোবর রোববার দুপুরে নগরীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

শ্রমিক দলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও সিলেট জেলার সভাপতি মোঃ সুরমান আলীর সভাপতিত্বে, জেলা সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান ও মহানগরের সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুর আহমদ লিটন চৌধুরী’র যৌথ পরিচালক প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ ক্ষুদ্র ও ঋণ বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক, বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য এডভোকেট এমরান আহমদ চৌধুরী, নাজিম উদ্দীন লস্কর, মহানগর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক মঈন উদ্দিন সোহেল, জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক ও আহবায়ক কমিটির সদস্য ইশতিয়াক আহমদ সিদ্দিকী, মাহবুবুল হক চৌধুরী ভিপি মাহবুব, কেন্দ্রীয় যুবদলের সাবেক সদস্য ও জেলা শাখার সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ছাদিকুর রহমান ছাদিক, মহানগর শ্রমিক দলের সভাপতি মোঃ ইউনুস মিয়া, জেলা কৃষক দলের আহবায়ক আলহাজ্ব শহিদ আহমদ চেয়ারম্যান, সদস্য সচিব আলহাজ্ব তাজরুল ইসলাম তাজুল।

বক্তব্য রাখেন মহানগর বিএনপি নেতা শফিকুল ইসলাম টুটুল, আব্দুস সামাদ তোহেল, মন্তাজ হোসেন মুন্না, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা খালেদুর রহমান ঝলক, টিটন মল্লিক, মিফতাহ উর রহমান, ছাত্রদল নেতা আহমেদ শাহীন, এস এ জুহেল।

উপস্থিত ছিলেন মহানগর হকার্স দলের সভাপতি মোঃ আব্দুল আহাদ, সাধারণ সম্পাদক ইসরাতজাহান খোকন, জেলা শ্রমিক দলের সহ সভাপতি মাসুক এলাহী, আব্দুল মুকিত, ফরিদ মিয়া, আব্দুল লতিফ তরফদার, মহানরগ শ্রমিক দলের সহ সভাপতি ইসমাইল হোসেন, সামছুল হক, নূর ইসলাম, আবুল হোসেন, জেলা শ্রমিক দলের যুগ্ম সম্পাদক জুয়েল ইসরাম, এমাদ উদ্দিন, রুকন উদ্দিন, ফকির মিয়া, মহানগর শ্রমিক দলের যুগ্ম সম্পাদক শফিকুল ইসলাম বাচ্চু, চাঁন মিয়া, জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক সামছুল ইসলাম ফয়ছল, নিজাম উদ্দিন, রাসেল আহমদ, লিটন আহমদ, রফিক মিয়া, শাহজাহান, মহানগর শ্রমিক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক খোকন ইসলাম, লিটন মিয়া, তৈমুছ আলী, ২৬নং ওয়ার্ড ম্রমিক দলের সভাপতি জমির আলী, সম্পাদক লায়েক আহমদ প্রমুখ। এছাড়াও বিভিন্ন উপজেলা, থানা, ওয়ার্ড ও ইউনিট কমিটির নেতৃবৃন্দ সহ হকার দলের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ ক্ষুদ্র ও ঋণ বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক বলেন, দেশ আজ এক ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে। মানুষের জানমাল, ইজ্জত, আব্রুর কোনো নিরাপত্তা নেই। কোনো মা জানেনা তার ছেলে জীবিত ঘরে ফিরবে কিনা। বাবা জানেনা তার মেয়ের ইজ্জত হেফাজত করতে পারবেন কিনা। তিনি বলেন, সিলেটে অমানবিক নির্যাতনের মাধ্যমে রায়হানকে যে হত্যা করা হয়েছে এটা কোনো স্বাধীন দেশের চিত্র হতে পারেনা। তার হত্যাকারীদের অনতিবিলম্বে গ্রেফতার করে দ্রুত বিচারকরা হোক। অন্যথায় এসব অনাচারের বিরুদ্ধে দেশের মানুষ দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এডভোকেট এমরান আহমদ চৌধুরী বলেন, ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ এমসি কলেজের গণধর্ষণের ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতে বন্দরবাজার ফাঁড়িতে পুলিশি নির্যাতনে তরতাজা প্রাণ হরণ করে পুলিশ। তিনি বলেন, আমাদের দেশে বিচারহীনতার যে সংস্কৃতি, জবাবদিহিতা না করা যে সংস্কৃতি, সেই সংস্কৃতি যত দিন পর্যন্ত না বন্ধ হবে তত দিন তথাকথিত সন্ত্রাসী কিংবা ধর্ষকদের গ্রেফতার করে কোনো সমস্যার সমাধান হবে না। তথাকথিত আইন পরিবর্তন করেও কোনো সমস্যার সমাধান হবে না। আমরা এই সংস্কৃতির অবসান চাই। এসআই আকবর সহ যারা এই ন্যাক্ক্যার জনক কাজে জড়িত ছিল তাদেরকে অনতিবিলম্বে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *