Main Menu

করোনা সংক্রমণ: যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়িয়ে যাওয়ার আশঙ্কায় ভারত

বিশ্বের সর্বাধিক করোনা সংক্রামিত দেশ হিসেবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে খুব দ্রুত সময়ের মধ্যেই ছাড়িয়ে যেতে পারে ভারত। ওয়াল্ডওমিটারের তথ্যমতে, এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে অদৃশ্য এই ভাইরাসের দ্বারা সংক্রমিতের সংখ্যা ৭৯ লাখ ৪৫ হাজার ৯৪৫। আর ভারতের মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭০ লাখ ৫৩ হাজার ৮০৬ জন।

রবিবার ( ১১ অক্টোবর) ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, কয়েক সপ্তাহ ধরে নতুন সংক্রমণের সংখ্যা দিন দিন দ্রুতই বেড়েই যাচ্ছে। তাই সবাইকে মাস্ক পরিধান ও সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার বিষয়ে বিশেষ ভাবে সতর্ক করা হচ্ছে।

বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, সংক্রমণের প্রকৃত সংখ্যা আরো অনেক বেশি হতে পারে, কারণ ভারত বিশ্বের বৃহত্তম জনবহুল শহরগুলির মধ্যে একটি। ১.৩ বিলিয়ন বিশাল জনসংখ্যার এই দেশে পরীক্ষার হার অন্যান্য দেশের তুলনায় অনেক কম। বিশেষজ্ঞরা আরো বলেন, সংক্রমণের হার আনুষ্ঠানিকভাবে যা প্রকাশ পাচ্ছে তার চেয়ে কয়েকগুণ বেশি হতে পারে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সর্বশেষ তথ্যানুসারে, ভারতের মৃত্যুর সংখ্যা ১ লাখ ৮ হাজার ৩৩৪ জন যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তুলনায় অনেক কম। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত ২ লাখ ১৯ হাজারেরও বেশি মারা গেছে।

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ রণদীপ গুলেরিয়া অ্যাসোসিয়েটেড ভারতের সংক্রমণের কথা উল্লেখ করে বলেন, “আমরা সংক্রমণের ঊর্ধ্ব গতিকে কিছুটা দমিয়ে রাখতে সক্ষম হয়েছি, তবে আমি স্বীকার করছি যে আমরা করোনার সংক্রমণ আশানুরূপ ভাবে কমিয়ে আনতে পারিনি।”

তবে কিছু বিশেষজ্ঞ যুক্তি দিয়ে বলেছেন যে, দুর্বল স্বাস্থ্য অবকাঠামো এবং অপর্যাপ্ত পরীক্ষার কারণে সরকারি ভাবে দেয়া মৃত্যুর সংখ্যার এই তথ্য নির্ভরযোগ্য হতে পারে না।

বৃহস্পতিবার থেকে সিনেমাগুলি পুনরায় চালু করতে যাচ্ছে ভারত। বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা করছেন আসন্ন ধর্মীয় উৎসবের বিশাল জনসমাগম করোনা সংক্রমণ হার কে আরো তরান্বিত করতে পারে।

হিন্দু ধর্মের প্রধান দুটি উৎসবে যেন আর নতুন সংক্রমণ না হয় সে জন্য কঠোর নির্দেশিকা জারি করেছে ভারত সরকার । এ মাসের দুর্গা পূজা ও পরের মাসে দিওয়ালির আনুষ্ঠানিকতায় কিছুটা সীমাবদ্ধতা এনেছেন তারা।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *