Main Menu

উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে গেছেন চিত্র নায়ক ফারুক

উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর গেছেন সংসদ সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা চিত্রনায়ক আকবর হোসেন পাঠান ফারুক। রবিবার সকাল পৌনে ৮টায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে কার্গো বিমানের একটি ফ্লাইটযোগে সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়েন তিনি।

এ সময় তার সফর সঙ্গী হিসেবে এক ব্যক্তি রয়েছেন। উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে আকবর হোসেন পাঠান ফারুককে।

চিত্রনায়ক ফারুকের স্ত্রী ফারহানা ফারুক সাংবাদিকদেরকে জানান, করোনায় পরিস্থিতি বেশ জটিল। সে কারণে যাত্রীবাহী বিমানের ফ্লাইট নিয়মিত নয়। এদিকে সময় নষ্ট করারও সুযোগ নেই। তাই মালবাহী কার্গো বিমানের বিশেষ ফ্লাইটে আমার স্বামী নায়েক ফারুককে সিঙ্গাপুর নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ফারুকের রক্তে সংক্রমণ ও জ্বর না কমায় তাকে সকালে সিঙ্গাপুরে পাঠানো হয়েছে।

নায়ক ফারুক দেশ ত্যাগ করার প্রাক্কালে সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘দেখুন আমি তো বিশেষ কেউ নই। আজীবন মাটি ও মানুষের কাছাকাছি থেকেছি। দেশের জন্য মুক্তিযুদ্ধ করেছি, অভিনয় করেছি আবার জনসেবাও করার চেষ্টা করছি। সরকার আমার চিকিৎসার জন্য সর্বোচ্চ সচেতন। সকাল-বিকাল সবাই খোঁজ নিচ্ছেন। বলছেন, আমার কী লাগবে। কিন্তু আমি কিছু নিতে চাই না, যতক্ষণ আমার সামর্থ্য আছে। আমি সবার কাছে শুধু দোয়া চাই। যেন সুস্থ হয়ে মানবসেবায় ফিরতে পারি।’

চিত্র নায়ক ফারুককে গত ১৮ আগস্ট রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। করোনাসহ নানা ধরনের পরীক্ষা করা হলেও অসুস্থতার কারণ জানা যায়নি।করোনার ফলও বারবার নেগেটিভ আসে। বেশ কয়েক দিন হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে কিছুটা সুস্থ হওয়ায় ২৬ আগস্ট বাসায় যান ফারুক। এরপর প্রচণ্ড অসুস্থতা অনুভব করলে ৩১ আগস্ট তাকে আবারো হাসপাতালটিতে ভর্তি করা হয়। করোনার পাশাপাশি টাইফয়েড, ডেঙ্গু, ম্যালেরিয়ার নমুনাও পরীক্ষা করা হয়। সবকিছুই নেগেটিভ রয়েছে। কিন্তু জ্বর না কমায় গত ৫ সেপ্টেম্বর রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে (পুরনো অ্যাপোলো) স্থানান্তর করা হয়েছে তাকে।

আকবর হোসেন পাঠান হচ্ছে নায়ক ফারুকের পুরো নাম। ১৯৭১ সালে এইচ আকবর পরিচালিত ‘জলছবি’ তে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে তার চলচ্চিত্র ক্যারিয়ারের শুরু। তিনি সুজন সখী, নয়নমনি, সারেং বৌ, লাঠিয়াল, গোলাপি এখন ট্রেনে, সাহেব, আলোর মিছিল, দিন যায় কথা থাকে, মিয়া ভাই-সহ শতাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *