Main Menu

এখনই খুলছে না সিনেমা হল : ১৫ সেপ্টেম্বরের পর জানা যাবে সিদ্ধান্ত

মহামারির জন্য দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ দেশের সিনেমা হলগুলো। এতে ক্ষতির মুখে যেমন পড়েছেন প্রযোজকরা, তেমনি হল মালিকদের ব্যবসাও বন্ধ। মাসের পর মাস গুনতে হচ্ছে সেই ক্ষতির হিসেব। সম্প্রতি স্টার সিনেপ্লেক্স একটি প্রেস কনফারেন্স করে আবারো হল চালু করা নিয়ে সহযোগীতা কামনা করে। এরইমধ্যে শুটিং শুরু হলেও এখনো সিনেমা হল খোলা নিয়ে কোনো সিদ্ধান্ত জানা যায়নি। হল মালিক ও চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টদের সবাই আবারো সিনেমা খুলে দেওয়ার আহ্বান জানায়। এ নিয়ে ২৭ আগস্ট সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে চলচ্চিত্র পরিচালক, প্রযোজক ও প্রদর্শক সমিতির নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘সিনেমা হলগুলো খোলার ব্যাপারে চলচ্চিত্র শিল্পের অংশীজনদের সাথে ইতোপূর্বেও আলোচনা হয়েছে। বর্তমান করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে হল খোলাটা কতটুকু যৌক্তিক হবে, সেটি একটি বড় প্রশ্ন। ভারতে এখনও সিনেমা হল খোলেনি। সেখানে সিনেমার দর্শক অনেক বেশি। আবার এখন সিনেমা হল খুললে দর্শক যাবে কিনা, সেটিও একটি প্রশ্ন। সুতরাং আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, আগামী মাসের ১৫ তারিখের পরে আমরা বসে এ ব্যাপারে একটি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করব কখন থেকে হলগুলো খোলা যায়।’

তথ্যমন্ত্রী আরো বলেন, ‘আপনাদের সঙ্গে করা আলোচনার বিষয়ে আমি প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করেছি। প্রধানমন্ত্রী স্পষ্ট করে বলেছেন, সিনেমা হল যেগুলো বন্ধ আছে সেগুলোকে চালু করা এবং নতুন সিনেমা হল চালু করার লক্ষ্যে একটি দীর্ঘমেয়াদি সফট লোন দেয়ার ব্যাপারে তিনি সংশ্লিষ্ট দফতরগুলোকে নির্দেশনা দেবেন।’

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার, চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির প্রধান উপদেষ্টা সুদীপ্ত কুমার দাস, চলচ্চিত্র পরিচালক বদিউল আলম খোকন, কবিরুল ইসলাম রানা, আব্দুস সামাদ খোকন, মুস্তাফিজুর রহমান মানিক, চলচ্চিত্র প্রদর্শক মিঞা আলাউদ্দিন ও আওলাদ হোসেন প্রমুখ সভায় অংশ নেন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *