Main Menu

সুনামগঞ্জে দু’মাসে করোনায় আক্রান্ত প্রায় চারশ, মৃত্যু ৩

সিলেট আমার সিলেট ডেস্ক :

 

সুনামগঞ্জে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছিল দোয়ারাবাজার উপজেলায়। ১২ এপ্রিল দোয়ারাবাজার উপজেলার মান্নারগাঁও ইউনিয়নের চন্ডিপুর গ্রামের ৪০ বছর বয়সী এক প্রবাসীর স্ত্রীর শরীরে করোনাভাইরাস সংক্রমিত হয়।

শনাক্ত হওয়ার প্রথম দিন থেকে আজ পর্যন্ত দুই মাসে করোনায় শনাক্ত হয়েছেন ৩৯৬ জন ও মৃত্যুবরণ করছেন ৩ জন। করোনাভাইরাস ইতোমধ্যে জেলাব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে। পুলিশ, র‌্যাব, ডাক্তার, স্বাস্থ্যকর্মী ও সিভিল সার্ভিসের সদস্যরাসহ আক্রান্ত হয়েছেন তৃণমূলের নানা শ্রেণীপেশার মানুষ। সামাজিক দুরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধিসহ সাধারণের অসেচতনতার কারণে দ্রুত বাড়ছে করোনার সংক্রমন। প্রতিদিনই রেকর্ড সংখ্যক হারে বাড়ছে রোগীর সংখ্যা। বুধবার রাতে একই দিনে জেলায় করোনায় শনাক্ত হয়েছেন ৪৬ জন। এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন সিভিল সার্জন কার্যালয়।

সিভিল সার্জন সূত্রে জানা যায়, সদর উপজেলায় এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৯৭ জন ও সুস্থ্য ৫ জন, দোয়ারাবাজার উপজেলায় আক্রান্ত ৩৬ জন ও সুস্থ্য হয়েছেন ১১ জন, বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় আক্রান্ত ১৬ জন ও সুস্থ্য হয়েছেন ৬ জন, তাহিরপুর উপজেলায় আক্রান্ত ১৭ জন ও সুস্থ্য হয়েছেন ১২ জন, জামালগঞ্জ উপজেলায় আক্রান্ত ১৯ জন ও সুস্থ্য হয়েছেন ৩ জন, দিরাই উপজেলায় আক্রান্ত ৮ জন ও সুস্থ্য হয়েছেন ৭ জন, ধর্মপাশা উপজেলায় কনোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৮ জন ও সুস্থ্য হয়েছেন ১৬ জন, ছাতক উপজেলায় সব চেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে। এই উপজেলায় এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ১১৩ জন ও সুস্থ্য হয়েছেন মাত্র ৮ জন, জগন্নাথপুর উপজেলায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৮ জন ও সুস্থ্য হয়েছে ৭ জন, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলায় এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ২৬ জন ও সুস্থ্য হয়েছেন ৯ জন, শাল্লা উপজেলায় আক্রান্ত হয়েছেন ১১ জন ও সুস্থ্য হয়েছেন ৯ জন। এছাড়াও সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭ জন ও সুস্থ্য হয়েছেন মাত্র ১ জন।

এখন পর্যন্ত আইসোলেশনে রয়েছেন ৩০২ জন ও হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন ৫ হাজার ৬০১ জন। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণকারী ৩ জনই ছাতক উপজেলার।

সিভিল সার্জন ডা. শামস উদ্দিন বলেন, শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩৯৬ জন ও সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৯৪ জন। এ পর্যন্ত ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। সামাজিক দুরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে বলে জানান তিনি।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *