Main Menu

তাহিরপুরে ছাত্রীকে উত্ত্যক্তের ঘটনায় হামলা, গ্রেফতার ২

অনলাইন ডেস্ক :

ছাত্রীদের উত্ত্যক্তের কারণে সামাজিক শাস্তির জের ধরে সুনামগঞ্জের তাহিরপুরের টাকাটুকিয়া গ্রামে নিরীহ এক সনাতন ধর্মাবলম্বীর বাড়িতে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করে টুকেরগাঁও গ্রামের একদল বখাটে। এ ঘটনায় দুই আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) ভোরে তাহিরপুর থানা পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, টুকেরগাঁও গ্রামের মৃত ফালু মিয়ার ছেলে সিরাজ মিয়া (৪৫) ও শহীদ মিয়া (৫০)। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল লতিফ তরফদার।

এর আগে বুধবার (১৪ এপ্রিল) দুপুর দেড়টায় দক্ষিণ বড়দল ইউনিয়নের টাকাটুকিয়া গ্রামের দেবেন্দ্র বর্মণের বাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় বৃদ্ধ ও নারীসহ অন্তত আটজন আহত হয়েছেন।

এ ঘটনায় একইদিন রাতে টুকেরগাঁও গ্রামের বিল্লাল মিয়াসহ ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত ১০-১২ জনের নামে তাহিরপুর থানায় মামলা করেছেন আহত দেবেন্দ্র বর্মণের ছেলে শ্যামল বর্মণ।

পুলিশ জানায়, মামলা দায়েরের পর বৃহস্পতিবার ভোরে এজাহারভুক্ত দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ আরো জানায়, টাকাটুকিয়া গ্রামের বর্মণ পাড়ার স্কুলপড়ুয়া ছাত্রীদের দীর্ঘদিন ধরে উত্ত্যক্ত করতো পার্শ্ববর্তী টুকেরগাঁও গ্রামের কাশেম মিয়া, লাইট মিয়া, মুসা মিয়া ও পাবেল মিয়া। এ নিয়ে চার মাস আগে টাকাটুকিয়া গ্রামে জামালগড়, রসুলপুর ও টুকেরগাঁও গ্রামের গণ্যমান্যদের উপস্থিতিতে সালিশ বসে। ভবিষ্যতে এমন কাজ করবেন না বলে সালিশে অঙ্গীকার করেন অভিযুক্তরা।

তাদের কান ধরে উঠবস করানো হয়। ওই ঘটনার পরও নানাভাবে বর্মণ পাড়ার মেয়েদের বিরক্ত করতেন তারা।

আগের বিচারে অপমানের জেরে বুধবার দুপুরে দেবেন্দ্র বর্মণের ছেলে সঞ্চিত বর্মনকে রাস্তায় একা পেয়ে মারধর করেন টুকেরগাঁও গ্রামের অভিযুক্তরা। তার চিৎকার শুনে পরিবারের লোকজন রক্ষা করতে গেলে তাদেরকেও মারধর করা হয়।

এরপর টুকেরগাঁও গ্রামের ২০-২৫ জন টাকাটুকিয়া গ্রামের দেবেন্দ্র বর্মণের বাড়িতে হামলা চালান। তারা নারীদেরও মারপিট করেন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *