Main Menu

ম্যারাডোনাকে স্মরণ করে স্টেডিয়ামের নাম বদল

ম্যারাডোনার নামে বদলে যাচ্ছে ইতালির নাপোলি শহরের হোম গ্রাউন্ড স্টেডিয়াম। স্তাদিও সান পাওলো স্টেডিয়াম শুক্রবার থেকে নাম বদলে আত্মপ্রকাশ করল স্তাদিও দিয়াগো আর্মান্দো ম্যারাডোনা নামে। নয়া নামকরণের পর আগামী ১০ ডিসেম্বর কৌলিবালি, ড্রায়েস মার্টেন্সরা স্তাদিও দিয়াগো আর্মান্দো ম্যারাডোনা স্টেডিয়ামে নিজেদের প্রথম হোম ম্যাচটি খেলবেন।

গত সপ্তাহে দিয়াগো ম্যারাডোনার মৃত্যুর পরই স্তাদিও সান পাওলো স্টেডিয়ামের নাম বদলে দিয়াগো ম্যারাডোনার নামে নামাঙ্কিত করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছিল ন্যাপেলস সিটি কাউন্সিল। ন্যাপেলস সিটি কাউন্সিল এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘অপরিসীম প্রতিভা এবং ফুটবল জাদু দিয়ে প্রয়াত দিয়াগো ম্যারাডোনা নাপোলি ক্লাবের জার্সিকে একদা সমৃদ্ধ করেছিলেন। দু’টি ঐতিহাসিক চ্যাম্পিয়নশিপ খেতাব ছাড়াও অন্যান্য ট্রফি দিয়ে গোটা শহরের ভালোবাসা উনি আদায় করে নিয়েছিলেন।

ক্লাব কর্তৃপক্ষ মনে করেন, এই শহর পরিচিতি পেয়েছে ম্যারাডোনার জন্যই। নাপোলি ক্লাব এক সংক্ষিপ্ত বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘দিয়াগো ম্যারাডোনার নামে স্তাদিও সান পাওলো নামকরণের যে সিদ্ধান্ত ন্যাপেলস সিটি কাউন্সিল গ্রহণ করেছে তাতে তারা উচ্ছ্বসিত।’

দিয়াগো ম্যারাডোনার মৃত্যুর ঠিক পরেই নাপোলি স্টেডিয়ামের নামকরণের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় এবং ন্যাপেলস শহরের মানুষ একবাক্যে এই সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানান।

১৯৮৪ সালে বার্সেলোনা ছেড়ে ন্যাপেলসে আগমন ঘটেছিল ২৩ বছর বয়সী ম্যারাডোনার। আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ এনে দেওয়ার পরের বছরেই ম্যারাডোনা ইতালি সেরা করেছিলেন নাপোলিকে। ১৯৯০ আবার সেরা নাপোলি। মাঝে ১৯৮৮-৮৯ উয়েফা কাপ ঘরে এসেছিল ইতালির ক্লাবটির।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *